আইপিভি ৪



সবচেয়ে বহুল এবং জনপ্রিয় হল আইপি ভার্সন ৪ অর্থাৎ আইপিভি৪। আইপিভি৬ এখনও তেমন বহুল ব্যাবহৃত ও জনপ্রিয় হয়ে ওঠেনি।


আইপি ভার্সন ৪

আইপি ভার্সন ৪ এ যে কোন একটি অ্যাড্রেসকে ৩২ বিট দিয়ে প্রকাশ করা হয়। কাজেই আইপিভি৪ এ অনন্য অ্যাড্রেস সংখ্যা হতে পারে ৪২৯৪৪৯৬২৯৬ (২৩২)। আইপিভি৪ এ কিছু অ্যাড্রেসকে বিশেষ প্রয়োজনে আলাদা করে রাখা হয়েছে যেমন -
প্রাইভেট নেটওয়ার্ক(~ ১৮ মিলিয়ন অ্যাড্রেস) অথবা
মাল্টিকাস্ট অ্যাড্রেস (~২৭০ মিলিয়ন)।
আইপিভি৪ অ্যাড্রেসগুলোকে সাধারণত ডট-ডেসিমেল এর মাধ্যমে প্রকাশ করা হয় যা ৪টি ডেসিমেল নম্বর দিয়ে গঠিত যেখানে প্রতিটি নম্বরের সীমা হল ০-২৫৫ এবং নম্বরগুলিকে ডট দিয়ে পৃথক করা হয়, যেমন -
১৭২.১৬.১০.৪০ ।
অ্যাড্রেসের প্রতিটি নম্বর/অংশ ৮বিটের একটি গ্রুপকে প্রকাশ করে। তবে অনেক ক্ষেত্রে আইপিভি৪ অ্যাড্রেসগুলোকে ডট-ডেসিমেল এর পরিবর্তে হেক্সাডেসিমেল, অক্টাল অথবা বাইনারী নম্বর দিয়েও প্রকাশ করা হয়।


আইপিভি৪ সাবনেট

ইন্টারনেট প্রটোকল চালুর প্রথম দিকে নেটওয়ার্ক প্রশাসকরা আইপি ঠিকানাকে দুটি অংশে ভাগ করেন - একটি হল নেটওয়ার্ক নম্বর এবং অপরটি হল হোস্ট নম্বর।

নেটওয়ার্ক নম্বর হল আইপি ঠিকানার প্রথম ৮বিট বা প্রথম অক্টেট এবং বাকী ২৪টি বিট বা ৩টি অক্টেট নিয়ে হল হোস্ট নম্বর। নেটওয়ার্ক নম্বর ইন্টারনেট প্রটোকলে সুনির্দিষ্ট নেটওয়ার্কটি খুজে বের করে এবং হোস্ট নম্বর দিয়ে ওই নেটওয়ার্কের ডিভাইস বা কম্পিউটারটিকে চিহ্নিত করা হয়। এই ব্যাপারটিকে বাসা বা বাড়ির ঠিকানার সাথে তুলনা করা যেতে পারে। কোন একটি ভবন অনুসন্ধান করার জন্য প্রথমে এলাকাটি খুজে বের করতে (নেটয়ার্ক নম্বর) হয় এবং পরবর্তিতে বাড়ির নম্বর (হোস্ট নম্বর) দিয়ে ভবনটিকে সনাক্ত করা হয়।

কিন্তু নেটওয়ার্কের স্ংখ্যা দিন দিন বাড়তে থাকায় নেটওয়ার্ক খুজে বের করার এই পদ্বতিটি সমস্যার সম্মুখীন হয়ে পরে কারণ এক অক্টেট দিয়ে বিপুল সংখ্যাক নেটওয়ার্ক এর জন্য স্বতন্ত্র নেটওয়ার্ক নম্বর প্রদান করা সম্ভবপর ছিল না। এ কারণে ১৯৮১ সনে ইন্টারনেট অ্যাড্রেসিং স্পেসিফিকেশন সংশোধন করে ক্লাশফুল নেটওয়ার্ক পদ্বতি প্রবর্তন করা হয়।


ক্লাশফুল নেটওয়ার্ক পদ্বতি

ক্লাশফুল নেটওয়ার্ক পদ্বতি নেটওয়ার্ক নম্বরের অসুবিধাটি দুর করার পাশাপাশি সাব নেটওয়ার্ক ডিজাইন ও সহজ করে দেয়। এই পদ্বতিতে আইপি ঠিকানার প্রথম ৮ বিট বা ১ অক্টেটের প্রথম তিন বিটকে আইপি ঠিকানার ক্লাশ (class) বলা হয়। সর্বজনীন ইউনিকাস্ট অ্যাড্রেসিং এর জন্য তিনটি ক্লাশ A,B এবং C তৈরি করা হয়। ক্লাশের উপর নির্ভর করে কতগুলো স্বতন্ত্র নেটওয়ার্ক নম্বর প্রদান করা যাবে। নেটওয়ার্ক নম্বরের সংখ্যা যত বেশি হোস্ট নম্বরের সংখ্যা তত কম। নিচের টেবিলে ক্লাশফুল নেটওয়ার্ক সম্পর্কে একটু ধারনা দেয়া হল।

ক্লাশ ক্লাশ নির্ধারণী প্রথম বিট সমূহ প্রথম অক্টেটেরসীমা নেটওয়ার্ক নম্বর ফরমেট হোস্ট নম্বর ফরমেট নেটওয়ার্কের সংখ্যা প্রতি নেটওয়ার্কে হোস্টের সংখ্যা
A ০ - ১২৭ a b.c.d = ১২৮ ২৪ = ১৬৭৭৭২১৬-২ {কারন ০ আর ১২৭ অ্যাড্রেসিং করার জন্য ব্যাবহার করা যায় না} ১৬৭৭৭২১৪
B ১০ ১২৮ - ১৯১ a.b c.d ১৪ = ১৬৩৮৪ ১৬ = ৬৫৫৩৬
C ১১০ ১৯২ - ২২৩ a.b.c d ২১ =২০৯৭১৫২ = ২৫৬

ক্লাশফুল নেটওয়ার্ক পদ্বতি প্রাথমিক অবস্থায় ইন্টারনেটের নেটওয়ার্ক নম্বরের প্রয়োজন মেটাতে সফল হলেও ১৯৯০ সনে নেটওয়ার্কের সংখ্যা দ্রুত বাড়তে থাকায় এই পদ্বতি সমস্যার সম্মুখীন হয়। এ কারণে ১৯৯৩ সনে ইন্টারনেট প্রটোকল অ্যাড্রেস স্পেস এর জন্য ক্লাশফুল নেটওয়ার্ক এর পরিবর্তে ক্লাশলেস ইন্টার ডোমেইন রাউটিং চালু করা হয়। এই পদ্ধতিতে অ্যাড্রেস স্পেস বরাদ্দের জন্য পরিবর্তশীল দৈর্ঘ্যের (variable-length) সাবনেট মাস্ক এবং রাউটিং এর জন্য বিভিন্ন দৈর্ঘ্যের উপসর্গ (prefix) ব্যাবহার করা হয়।


আইপিভি৪ প্রাইভেট অ্যাড্রেস

শুরুর দিকে নেটওয়ার্ক পরিকল্পনা করার সময় সকল হোস্টকে (কম্পিউটার বা ডিভাইস) স্বতন্ত্র আইপি ঠিকানা দেওয়ার চিন্তা করা করা হয়েছিল যেন ইন্টারনেটের সকল কম্পিউটার একে অপরের সাথে সরাসরি যোগাযোগ করতে পারে। তবে প্রাইভেট নেটওয়ার্ক তৈরি হওয়ার ফলে দেখা গেল যে স্বতন্ত্র আইপি অ্যাড্রেসের সর্বদা প্রয়োজন নেই এবং অন্যদিকে ইন্টারনেটের ব্যবহার বেড়ে যাওয়ায় পাবলিক অ্যাড্রেস সংরক্ষন করার প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয়।

প্রাইভেট নেটওয়ার্কে কম্পিউটারগুলো সরাসরি ইণ্টারনেটে যুক্ত থাকে না, যেমন ব্যাংক, বিভিন্ন কর্পোরেট প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটারগুলো যেগুলো এক অপরের সাথে টিসিপি/আইপি এর মাধ্যমে যোগাযোগ স্থাপন করে থাকে, এদের সর্বজনীন স্বতন্ত্র আইপি ঠিকানার প্রয়োজন নেই। প্রাইভেট নেটওয়ার্ক গুলোর জন্য RFC 1918 আইপি ঠিকানার ৩টি শ্রেনী সংরক্ষন করা রয়েছে। এই ঠিকানাগুলো ইন্টারনেটে রাউট করা হয় না এবং ফলে এগুলো ব্যবহার করার জন্য আইপি অ্যাড্রেস রেজিস্টির সাথে সমন্বয়ের প্রয়োজন নেই। প্রাইভেট নেটওয়ার্কের হোস্টগুলো Network Address Translation(ন্যাট) এর মাধ্যমে ইন্টারনেটে সংযুক্ত হয়ে থাকে।

  শুরু শেষ অ্যাড্রেসের সংখ্যা
২৪-বিট ব্লক (/৮ উপসর্গ(prefix), ১ × A) ১০.০.০.০ ১০.২৫৫.২৫৫.২৫৫ ১৬৭৭৭২১৬
২০-বিট ব্লক (/১২ উপসর্গ(prefix), ১৬ × B) ১৭২.১৬.০.০ ১৭২.৩১.০.০ ১০৪৮৫৭৮
১৬-বিট ব্লক (/১৬ উপসর্গ(prefix), ২৫৬ × C) ১৯২.১৬৮.০.০ ১৯২.১৬৮.২৫৫.২৫৫ ৬৫৫৩৬







এই ওয়েব সাইট এর সমস্ত টিউটোরিয়াল, সার্কিট ডায়াগ্রাম, উদাহরণ ইত্যাদি খুব সহজ ও সাধারণ ভাবে তৈরি করা হয়েছে। টিউটোরিয়াল, সার্কিট ডায়াগ্রাম, উদাহরণ ইত্যাদির ভুল পরিহার করার জন্য বার বার যাচাই করা হয়েছে, কিন্তু আমরা এর পূর্ণ নিশ্চয়তা ও দায়ভার বহন করি না। যখন আপনি এই সাইটটি ব্যবহার করেন, আমরা ধরে নেই যে আপনি পড়েছেন এবং সম্মত আছেন আমাদের টার্মস অফ ইউস (Terms of use) এবং প্রাইভেসি পলিসি( Privacy policy) সম্পর্কে।

Report or suggest about this page

Copyright 2016-2018 by websschool.com, All Rights Reserved.